দুটি ফলের ভারে নুয়ে পড়ছে জয়ার গাছ !

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। যার অভিনয় দক্ষতা কেড়ে নিয়েছে কোটি ভক্তের হৃদয়। অবাক করা বিষয় হল, সুন্দরী এই অভিনেত্রীর বয়স কেবল ক্যালেন্ডারেই বেড়েছে, বাস্তবে তার বয়স কত তা বোঝার উপায় নেই।

জয়া অভিনয় যেমন ভালোবাসেন, তেমনি পশু ও বৃক্ষপ্রেমী হিসেবে তার দারুণ খ্যাতি রয়েছে। তার বাড়িতে গড়ে তুলেছেন ছাদবাগান। তাতে শোভা পাচ্ছে নানা প্রজাতির গাছ। পাশাপাশি বাসার বারান্দায় রয়েছে বাহারি ফুল গাছ। মাঝেমধ্যে সেসব ফুল-ফলের ছবি তোলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে দেখা যায় এই অভিনেত্রীকে।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) জয়া আহসান তার ফেসবুকে কামরাঙা, শিম, বেগুন, ফুল কপি, ও বড়ইয়ের ছবি পোস্ট করেছেন। এসবই জয়ার ছাদবাগানের সবজি ও ফল। যে গাছের কামরাঙা ও বড়ইয়ের ছবি তিনি পোস্ট করেছেন, সেই গাছ সংগ্রহের পেছনে মজার একটি ঘটনা রয়েছে। যা তিনি তার ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন।

মজার সেই ঘটনা বর্ণনা দিয়ে জয়া আহসান লিখেছেন- শুটিং করতে গিয়ে বারুইপুর থেকে কামরাঙা আর কুল বড়ইয়ের দুটো গাছ নিয়ে এসেছিলাম। এয়ারপোর্টে লাগেজে শপিংয়ের বদলে গাছ দেখে সবাই খুব হাসাহাসি করেছিল। সেই গাছ আমার এখন ফলের ভারে নুয়ে পড়েছে। আজ সকালে ছাদবাগানের সবজি; গোলাকারটা কিন্তু আপেল নয়, কুল!

জয়া আহসানের বাসার ছাদ ও ব্যালকনির চারপাশে প্রায় শতাধিক ফল ও সবজির গাছ রয়েছে। গত বছর লকডাউনের সময়ে জয়া বেশি সময় পার করেছেন এই বাগানে। নতুন গাছ লাগানো আর পরিচর্যা করে কাটিয়েছেন তিনি।

তার বাগানে রয়েছে চালকুমড়া, থাই বেগুন, বরবটি, শিম, লেবু, মাল্টা, ডুমুর, বেদানা, বড়ই, পেয়ারা, সফেদা, বেরি, কামরাঙা ও নানারকম ভেষজ গাছ। বেশ কিছু বিদেশি সবজি, ফল ও ফুলগাছ রয়েছে জয়ার ইস্কাটনের বাসার এই ছাদবাগানে।

সুত্রঃ দৈনিক এইদিন

Leave a Reply

%d bloggers like this: